কম্বোডিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

0
62

ডেস্ক প্রতিবেদক ::

লম্বা বিরতির পর কম্বোডিয়াকে দিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচ শুরু করেছে বাংলাদেশ। ম্যাচ খেলতে নেমে স্বাগতিক কম্বোডিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দল। দলের একমাত্র গোলটি করেন বদলি হিসেবে নামা রবিউল হাসান।

এই জয়ে প্রায় পাঁচ মাস পর আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাংলাদেশের ফেরাটা হলো দুর্দান্ত। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত থাকার রেকর্ডও ধরে রাখলো বাংলাদেশ। বিশ্ব ফুটবল র‌্যাঙ্কিংয়ে কম্বোডিয়ার অবস্থান ১৭২ আর বাংলাদেশ ১৯২। কিন্তু ম্যাচে লাল সবুজদের সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারেনি স্বাগতিকেরা।

বছরের প্রথম ম্যাচ হলেও এই ম্যাচের উপর নির্ভর করছিল দেশের অনেক হিসেব-নিকেশ। এর আগে সবশেষ গেল অক্টোবরে প্যালেস্টাইনের বিপক্ষে ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। এরপর কেটে গেছে ৫ মাস। পাঁচ মাসে ঘরোয়া ফুটবল নিয়ে মেতে থাকা ফুটবলারদের বড় চ্যালেঞ্জ ছিল স্বাগতিক কম্বোডিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি।

ম্যাচের প্রথম থেকেই কম্বোডিয়ার জালে ছিল বাংলাদেশ দলের ফুটবলারদের আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণের পসরা। বার বার আক্রমণ করেও অবশ্য গোল পাচ্ছিল না বাংলাদেশ। কম্বোডিয়ার গোলরক্ষকই ছিল যেন বাংলাদেশের সামনে বড় প্রতিপক্ষ। কিন্তু ৮৩ মিনিটে আর দলকে রক্ষা করতে পারেননি স্বাগতিকদের গোলরক্ষক।

পাল্টা আক্রমণে মাঝ মাঠ থেকে লেফট উইংয়ে বল পান ১৬ নম্বর জার্সিধারী, পরিবর্তিত ফুটবলার মাহবুবুর রহমান সুফিল। নাবীব নেওয়াজ জীবনের পরিবর্তে তাকে মাঠে নামান কোচ জেমি ডে। লেফট উইং ধরে বল নিয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে আসেন সুফিল। কম্বোডিয়ান এক ডিফেন্ডার তাকে থামানোর জন্য শরীরের সাথে লেগে থাকলেও সুফিল দারুণ দক্ষতায় বক্সের বাম পাশে এগিয়ে আসা মাহবুবুর রহমানকে পাস দেন।

চলমান বলে বাম পায়ের টোকা দেন মাহবুবুর রহমান। সেটিই শেষ পর্যন্ত ফাঁকি দিলো কম্বোডিয়ার গোলরক্ষককে। তার মাথা এবং কাঁধের ফাঁক দিয়ে বল গিয়ে প্রবেশ করল কম্বোডিয়ার জালে। এই গোলটিই শেষ পর্যন্ত হয়ে রইল জয় নির্ধারক হিসেবে।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here