“নির্ঘুম প্রচার অভিযানে ভাঙ্গায় প্রার্থীরা “

0
193

মামুনুর রশিদ ::

এর নাম রাজনীতি! আরে বাবা এর নাম নির্বাচন। বলতে গেলে দিল্লিকা লাড্ডু? নির্বাচনের দিনক্ষন এগিয়ে আসছে বলেই বাড়ছে প্রার্থীদের প্রচারণার দ্রুত গতি। কার আগে কে যাবেন ভোটারদের দোর গোঁড়ায়?

একটি চায়ের দোকানে বসে নির্বাচনের গরম গরম চা পান করার সময় একজন সাধারন ভোটার এমনই করে কথাগুলো বলছিলেন। উপস্থিত অন্য সকলে তার কথা বেশ খেয়ালী ধারায় শুনতে ছিলেন।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ২য় ধাপের তালিকায় আগামী ১৮ মার্চ ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। একটি পৌরসভা এবং ১২টি ইউনিয়ন গঠিত ভাঙ্গা উপজেলা। মোট ভোটার সংখ্যা ভাঙ্গায় ১ লাখ ৯৮ হাজার ৪৯২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৯৯ হাজার ৯২৭জন। মহিলা ভোটার সংখ্যা ৫৮ হাজার ৫৬৫জন।

এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হিসাবে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ভোট যুদ্ধে মাঠে লড়ছেন। আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতিকে লড়ছেন ঘারুয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন। স্বতন্ত্র সাংসদ মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এমপির মনোনীত প্রার্থী মোঃ হাবিবুর রহমান আল হাবিব। তার প্রতীক আনারস।

এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে আলহাজ মাওলানা ইছাহাক মোল্লা লড়ছেন উড়োজাহাজ মার্কা নিয়ে এবং খন্দকার ওবায়দুর রহমান মামুন তালা মার্কা। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মানিকদা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান পারুলী আক্তার ফুটবল প্রতীক এবং নাজমা বেগম কলস প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে লড়ছেন।

সমাগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচন ঘিরে গোটা এলাকায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনার পাশাপাশি উচ্ছ্বাস সৃষ্টি হয়েছে। ভোটারদের উচ্ছ্বাসের হাওয়ায় দুলছে প্রার্থীরা। নিজেদের নেতাকর্মীদের নিয়ে দিন-রাত্রীর হিসেব ভুলে গিয়ে প্রার্থীরা শুধুই ছুটে চলেছেন প্রত্যন্ত গ্রামের পর গ্রামে। সাধারণ মানুষের ভাষ্যমতে” নির্ঘুম প্রচার অভিযানে ভাঙ্গায় ছুটে চলছেন প্রার্থীরা ” ( বিস্তারিত আসছে————আমাদের সাথেই থাকুন)

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here