“রত্নগর্ভা মা” সম্মাননা পেলেন ৩৫ জন মা

0
64

বিশেষ প্রতিবেদক ::
স্বপ্রতিভায় বিকশিত ও স্ব স্ব ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত এবং তিন বা তার বেশি সন্তান উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার পাশাপাশি অসামান্য নিষ্ঠা ও ত্যাগ স্বীকার ও সঠিক শিক্ষা ও দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন এমন ৩৫ মা পেলেন “রত্নগর্ভা মা” সম্মাননা।

রাজধানীর ঢাকা ক্লাবের স্যামসন এইচ. চৌধুরী সেন্টারকে আলোয় আলোকিত করে গেলেন সেই ৩৫ জন মা।

আজ বিশ্ব মা দিবস। সারা দেশ থেকে ঢাকায় এনে দুটি ক্যাটাগরিতে ‘রত্নগর্ভা মা-২০১৮’ সম্মাননা দিয়েছে আজাদ প্রোডাক্টস্। মায়েদের মধ্যে রয়েছেন দৈনিক সমকালের সিনিয়র রিপোর্টার অমরেশ রায়, দৈনিক টাকা টাইমস্-এর সহকারী সম্পাদক অশোকেশ রায়ের মা নির্মলা রাণী রায়ও।

মর্যাদাপূর্ণ ‘রত্নগর্ভা মা-২০১৮’ এ্যাওয়ার্ড প্রদানের অনুষ্ঠানে এবারের ‘মাই ড্যাড ওয়ান্ডারফুল’ অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন কবি আসাদ চৌধুরী।

২০০৩ সাল থেকে আজাদ প্রোডাক্টস্ এই সম্মাননা দিয়ে আসছে। এবারের ১৬তম আসরটি রমজানের কারণে কিছুটা অনাড়ম্বরপূর্ণ করা হয়েছে বলে অনুষ্ঠানে জানান আজাদ প্রোডাক্টস্ (প্রা.) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ।

অনুষ্ঠানে সব রত্নগর্ভা মায়ের হাতে সম্মাননা হিসেবে মনোমুগ্ধকর ক্রেস্ট, সনদপত্র এবং উপহার সামগ্রী তুলে দেন প্রধান অতিথি শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ হুমায়ুন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব।

‘রত্নগর্ভা মা-২০১৮’ হিসেবে সাধারণ ক্যাটাগরিতে ২৫ জন এবং বিশেষ ক্যাটাগরিতে ১০ জন মা-কে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

তাদের মধ্যে সাধারণ ক্যাটাগরিতে এই সম্মাননায় ভূষিত হন ফাতেমা ইসলাম শিরীন, রওশনারা বেগম, রহিমা খাতুন, আপেল রানী সাহা, হামিদা রাজ্জাক, মমতা বেগম, দৌলত আরা বেগম, হোসনে আরা বেগম, কাজী জাহানারা হোসেন, সালেহা হক, আয়েশা খাতুন, নূরুননেছা, আফিয়া সোলায়মান, ফজিলাতুন্নেসা, রোমেলি বড়ূয়া, রাবিয়া আলম, মনোয়ারা বেগম, সেলিন ডি কস্টা, জোহরা আককাজ, রোকেয়া বেগম, জোবাইদা হক, মেহেরুন্নেছা, নির্মলা রাণী রায়, রিজিয়া কামাল এবং সুফিয়া খাতুন।

বিশেষ ক্যাটাগরিতে এই সম্মাননার জন্য মনোনীত হন গুলনাহার বেগম, তাহেরা খানম, ছালেহা খাতুন, রহিমা খাতুন, আনোয়ারা বেগম, দিলরুবা হক রুমা, তাহমিনা বেগম, রোকেয়া সিদ্দিকী, ডা. পারভীন হাকিম আনোয়ার এবং খন্দকার তহুরা। ‘মাই ড্যাড ওয়ান্ডারফুল’ অ্যাওয়ার্ডে কবি আসাদ চৌধুরী।

স্বাগত বক্তব্যে আবুল কালাম আজাদ জানান, আগামী বছর থেকে বিশ্ব মা দিবসে মাকে নিয়ে নতুন একটি করে গান সৃষ্টিতে পৃষ্ঠপোষকতা করবেন তিনি। এ লক্ষ্যে তার প্রতিষ্ঠান থেকে গীতিকারদের কাছে গান আহ্বান করে সেরা নির্বাচিত গানে সুরারোপ ও পরে খ্যাতনামা শিল্পীদের দিয়ে গাওয়ানো হবে। গীতিকার-সুরকার-শিল্পীরা পাবেন যথাযথ সম্মানী।

প্রতি বছরের বিশ্ব মা দিবসে রত্নগর্ভা মা সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে গানের প্রিমিয়ার হবে।

আগামীতে উপজেলা পর্যায় থেকে ‘রত্নগর্ভা মা’ সম্মাননা দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, মায়েদের কল্যাণে আগামীতে ‘রত্নগর্ভা মা ফাউন্ডেশন’ গঠন করা হবে। যেসব মাকে সন্তানরা দেখভাল করেন না, তাদের এই ফাউন্ডেশন থেকে সহায়তা দেওয়া হবে।

এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় সংগঠন গড়ে তুলে ‘রত্নগর্ভা মা অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হবে। তাদের সন্তানদের ব্যবসার জন্য পুঁজিও দেওয়া হবে।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here