নদীর তীর উচ্ছেদ অভিযান আবার শুরু হচ্ছে : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

0
42

সংবাদদাতা :: নদীর তীরে গড়ে তোলা অবৈধ আবাসিক ভবনের উচ্ছেদ অভিযান রোজার জন্য বন্ধ ছিল। শিগগির আবার তা চালু হবে বলে জানিয়েছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তবে মেঘনা ও শীতলক্ষ্যায় অবৈধ দখল উচ্ছেদ অভিযান চলমান রয়েছে বলে জানান তিনি।

আজ রবিবার সচিবালয়ে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা চাই অবৈধ দখল থেকে নদীগুলো রক্ষা করতে। যেহেতু সরকার ১০ হাজার কিলোমিটার নৌপথ করার কথা নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা দিয়েছে। বর্তমানে দেশে ৬ হাজার কিলোমিটার নৌপথ রয়েছে। কিন্তু শুষ্ক মৌসুমে ২ হাজার কমে যায়৷ এজন্য নতুন করে আরো চার হাজার কিলোমিটার নদীপথ সচল করা হবে। সব মিলিয়ে ১০ হাজার কিলোমিটার করা হবে।

রাজধানীর সদরঘাটে অতিরিক্ত যাত্রীর চাপ কমাতে লঞ্চ টার্মিনাল বাড়ানোর কাজ আগামী জুলাইয়ে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেছেন, বাবুবাজার ব্রিজ থেকে পোস্তগোলা ব্রিজ পর্যন্ত জেলা অনুযায়ী আলাদা করে টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে। এজন্য দুই বছর সময় লাগবে।

তিনি বলেন, এবার দেশের মানুষ নির্বিঘ্নে ও নিরাপদে ঈদ উদযাপন করতে পেরেছে। মন্ত্রণালয়ের প্রতিটি সদস্য আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করায় এটা সম্ভব হয়েছে। তবে ঈদের দুই দিন আগে একটু জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। সেটা হয়েছে বিকেএমইএ ও বিজিএমইএ একসঙ্গে ছুটি ঘোষণায় হঠাৎ বাড়তি চাপ সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি বলেন, সদরঘাটে শেষের দুইদিন বাড়তি চাপ পড়েছে। এর কারণ হলো ছুটিগুলো এক সঙ্গে পড়েছে। পাশাপাশি সদরঘাটে জায়গার সঙ্কট রয়েছে। এজন্য টার্মিনাল বাড়াতে ৬৩৩ কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এই জুনের শেষে বা আগামী জুলাইয়ে কাজ শুরু করা হবে। বাস্তবায়নে দুই বছর সময় লাগবে।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here