বিয়ের পিঁড়ি নয়তো ‘শ্মশান

0
37

সংবাদদাতা :: এবার বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে এক কলেজছাত্রী। হয় বউ কর! না হয় লাশ হয়ে প্রেমিকের বাড়ির শ্মশানে যাবেন অবস্থানকারী। ঘটনাটি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায়।

গতকাল রবিবার বিকেলে সরেজমিন জানা গেছে, উপজেলার কলাবাড়ি ইউনিয়নের বৈকণ্ঠপুর গ্রামের মলয় ঘটকের ছেলে তরুণ ঘটকের সাথে মাদারীপুর জেলার কালকিনি সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে গত ৪ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল।

গত ৬ জুন তরুণ ঘটক ওই ছাত্রীকে বিয়ের কথা বলে ফোন দিয়ে তার বাড়িতে আসতে বলে। ওই দিনই ফোন পেয়ে ওই ছাত্রী তরুণ ঘটকের বাড়িতে যান। ছাত্রী তরুণের বাড়িতে যাবার পর তরুণ তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

তরুণ ঘটকের বাড়ি অবস্থানকারী ওই ছাত্রী জানান, তরুণের সাথে ৪ বছর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আমার সাথে পরিচয় হয়। কালকিনিতে দুজনের সাক্ষাৎ থেকেই প্রেম প্রণয়।

ওই ছাত্রী আরও জানান, তরুণ বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বিভিন্ন সময় ঢাকায় তার সায়েদাবাদের বাসায় নিয়ে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এরপর গত বৃহস্পতিবার তরুণ আমাকে ফোন করে বাড়িতে আসতে বললে আমি চলে আসি। কিন্তু আমাকে ডেকে এনে অনেক মারধর করে পালিয়েছে। ও যদি এখন আমাকে বিয়ে না করে তা হলে এই বাড়িতেই আমি আত্মহত্যা করব।

তরুণের মা ইতি ঘটক বলেন, এই মেয়ে ও তরুণের মাঝে প্রেম সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না। তরুণ ঢাকায় লেখাপড়া করে। বর্তমানে সে ঢাকায় আছে। এই বিষয়টি সমাধানের জন্য দুই পক্ষের অভিভাবকদের মাঝে আলোচনা চলছে।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here