মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে আগুনঃ পরিদর্শনে সরকারি কর্মকর্তা ও চেয়ারম্যান

0
74

ভাঙ্গা সংবাদদাতা :: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার চাঞ্চল্যকর ঘটনা হামিরদী ইউনিয়নের মুন্সুরাবাদ গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনের ঘটনায় আজ দুপুরে সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন হিমাদ্রী খীসা (সহকারী কমিশনার ভূমি) ভাঙ্গা।

এছাড়া হামিরদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শামসুল আলম রাসেল মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন বলে পৃথক দুটি সূত্র লিড-নিউজ২৪ডটকম প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেছেন।

সহকারী কমিশনার ভূমি অফিস সূত্রে জানা গেছে, ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার ও ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মূকতাদিরুল আহমেদের নির্দেশে ভাঙ্গা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা সরজমিনে বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত চিত্র দেখতে যান।

এসময় তিনি মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির সদস্যদের সাথে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। সরকারের প্রতিনিধি হিসাবে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের পাশে থাকার কথা অভিব্যক্ত করে বলেন সরকারি অনুদানসহ সকল ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে। সেইসাথে নিরাপত্তার স্বার্থে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে আরও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

এদিকে হামিরদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শামসুল আলম রাসেল বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে সহমর্মিতা প্রকাশের পাশাপাশি নিজস্ব আর্থিক তহবিল থেকে নগত ৫ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন। এসময় তিনি এই ঘটনার সাথে যারা জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

মোবাইলফোনে লিড-নিউজ২৪ডটকম প্রতিনিধিকে হামিরদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শামসুল আলম রাসেল বলেন, নিজস্ব আর্থিক তহবিল থেকে নগত ৫ হাজার টাকা অনুদানের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের পরিবারের ঘর তোলার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কাঠ, টিনসহ যাবতীয় সাহায্য করা হবে বলে জানান তিনি ।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দুর্বৃত্তরা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের বাড়িতে আগুন দিলে বসতবাড়ি সংলগ্ন একটি ঘর ভস্মীভূত ও একটি ছাগল পুড়ে যায়। এছাড়া আগুনে পুড়ে রেশমা নামে মুক্তিযোদ্ধার ছোট মেয়ে গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র মতে, এলাকায় গ্রাম্য দলাদলি ও পানিউন্নয়ন বোর্ডের একটি জায়গা দখল ঘটনা কেন্দ্র করে মুন্সুরাবাদ গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে প্রভাবশালী বিবদমান দুটি জনগোষ্ঠীর মধ্যে হানাহানির সূত্রটায় একটি নাভিশ্বাস পরিস্থিতি বিরাজ করছে বলে অভিযোগ সাধারণ গ্রামবাসীর।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here