না ফেরার দেশে অভিনেতা সাদেক বাচ্চু

0
134

বিনোদন ডেস্ক :: বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের শক্তিমান অভিনেতা সাদেক বাচ্চু আর নেই। তিনি আজ সোমবার দুপুর ১২টা ৫ মিনিটের দিকে রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)।

খবরটি নিশ্চিত করেন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্তী।

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সাদেক বাচ্চুর শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় শনিবার তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। এরপর তার অবস্থা আরও ক্রিটিক্যাল’ হতে থাকে। সর্বশেষ সোমবার সকালে আবারও কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হন সাদেক বাচ্চু।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,মৃত্যুকালে সাদেক বাচ্চুর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি দুই কন্যা ও এক পুত্রসন্তান রেখে গেছেন। সাদেক বাচ্চুর মৃত্যুতে চলচ্চিত্রাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বেশকিছু দিন আগে সাদেক বাচ্চুর ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয়। সপ্তাহ দুয়েক আগে তিনি টাইফয়েডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপর শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় গত ৭ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১১টায় ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি হন সাদেক বাচ্চুকে। পরদিন তার করোনা পরীক্ষা করা হলে ফলাফল পজিটিভ আসে। ঢামেকে সাদেক বাচ্চুর চিকিৎসাধীন অবস্থায় শারীরিক অবস্থায় অবনতি ঘটলে গেল শনিবার দুপুরে তাকে মহাখালীর ইউনিভার্সাল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

৫০ বছরের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে সাদেক বাচ্চু বেতার, নাটক, চলচ্চিত্র, সর্বত্র কাজ করেছেন। তবে নব্বই দশকে এহতেশামের ‘চাঁদনী’ ছবিতে অভিনয়ের পর জনপ্রিয়তা পান খলনায়ক হিসেবে। এই পরিচয়েই দেশজুড়ে খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে সাদেক বাচ্চুর। এ ছবির পর তার নাম মাহবুব আলম থেকে হয়ে যাবে সাদেক বাচ্চু।

খলনায়ক ছাড়াও নানামুখী চরিত্রে দক্ষতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন সাদেক বাচ্চু। তার অভিনীত সর্বশেষ ছবি ‘বিদ্রোহী’। সাদেক বাচ্চু তার অভিনয় ক্যারিয়ারে স্বীকৃতিস্বরূপ অসংখ্য সম্মাননার পাশাপাশি ২০১৮ সালে ‘একটি সিনেমার গল্প’–এর জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

print

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here