• বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জেমিনের মৃত্যুতে শোক প্রধানমন্ত্রীর মোবাইলে সরাসরি রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন প্রবাসীরা ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী ভাঙ্গায় নারীর সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ভাবনা সেমিনার অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রে ৩ ফুটবলারকে গুলি করে হত্যা ভাঙ্গায় আরও ৪০টি ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ঘর বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হলো বাংলাদেশ ভাঙ্গা মাদানী নগর কবর স্থান পরিচালনার নতুন কমিটি গঠন অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ মৃধা ভাঙ্গায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, পুলিশকে দুষছেন বিএনপির আমান

বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট নিজেদের ওপর আস্থা হারিয়েছে

Reporter Name / ১১৯১ Time View
Update : রবিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

প্রতিবেদক ::

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নিজেরাই নিজেদের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। তাই তারা এখন আর কারো ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনায় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্টকে আগে নিজেদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ও আস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে। নির্বাচন বর্জন আর প্রতিহতের পথ থেকে তাদের সরে আসতে হবে।

বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যেদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা সংসদে এসে জনগণের অধিকার নিয়ে কথা বলুন। তাদের অধিকার রক্ষার চেষ্টা করুণ। তা না হলে আপনারা জনগণের কাছে আর ফিরে যেতে পারবেন না।

সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে কিংবদন্তি রাজনীতিক উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, তিনি তার মেধা এবং প্রজ্ঞা দিয়ে সংসদকে সবসময় প্রাণবন্ত করে রাখতেন। তিনি আওয়ামী লীগ কর্মীদের জন্য ছিলেন উদার মন-মানসিকতার মানুষ। তার কাছে গিয়ে কেউ কোন দিন হতাশ হয়নি অথবা খালি হাতে ফেরত আসেনি। তার অকাল প্রয়াণ দেশের জন্য, আওয়ামী লীগের জন্য এবং সংসদের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, তিনি একজন কর্তব্যপরায়ণ ব্যক্তিও ছিলেন বটে। ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েও সংসদ চলাকালে কোনো দিন সংসদে অনুপস্থিত ছিলেন না। মৃত্যুর দুই দিন আগেও তিনি সংসদে এসেছিলেন।

বিরোধী নেতাদের ইঙ্গিত করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এখনকার নেতাদের সৌজন্যবোধও নেই। তারা কোনো অনুষ্ঠানে সৌজন্যবোধ দেখান না। তাদের দাওয়াত করলেও নেতিবাচক মনোভাবের জন্য তারা সেটা গ্রহণ করেন না।

এসময় তিনি বিরোধী দলের নেতাদের নেতিবাচক রাজনীতি থেকে সরে আসার আহ্বান জানান।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের সভাপ‌তি‌ত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী নেতা বলরাম পোদ্দার, ডা. দিলীপ কুমার রায়, কামাল চৌধুরী, অনুরাধা বিশ্বাস, কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ