• রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জেমিনের মৃত্যুতে শোক প্রধানমন্ত্রীর মোবাইলে সরাসরি রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন প্রবাসীরা ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী ভাঙ্গায় নারীর সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ভাবনা সেমিনার অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রে ৩ ফুটবলারকে গুলি করে হত্যা ভাঙ্গায় আরও ৪০টি ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ঘর বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হলো বাংলাদেশ ভাঙ্গা মাদানী নগর কবর স্থান পরিচালনার নতুন কমিটি গঠন অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ মৃধা ভাঙ্গায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, পুলিশকে দুষছেন বিএনপির আমান

নির্বাচন থেকে দূরে সরে যাওয়া মোটেও গণতান্ত্রিক পথ নয়-সংবাদ সম্মেলনে সেতুমন্ত্রী

Reporter Name / ৯০৮ Time View
Update : শনিবার, ২ মার্চ, ২০১৯

প্রতিবেদক ::

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি যেভাবে একের পর এক নির্বাচন বয়কট শুরু করেছে তাতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে তাদের অবস্থা আরো খারাপ হবে। নির্বাচন থেকে দূরে সরে যাওয়া মোটেও গণতান্ত্রিক পথ নয়। বিএনপির জন্য কোনো নির্বাচনই থেমে থাকবেও না।

আজ শনিবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

কাদের বলেন, বিএনপি দলগতভাবে না আসলেও তাদের উপজেলা নির্বাচনে তৃণমূল অংশ নিচ্ছে। এখানে বিএনপি না চাইলেও গত তিনটি ধাপে তাদের অনেকে অংশ নিয়েছে। তাদের কথা তৃণমূল শুনেনি। গত নির্বাচনেও প্রথম তিন ধাপে কিন্তু বিএনপিই বেশি সংখ্যা জিতেছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই এবারো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সদ্য সমাপ্ত ঢাকা সিটি নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সিটি উপ-নির্বাচনের দিন সারা দিন মেঘলা আকাশ থাকার কারণে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। তবে বিকেলে মেঘলা আকাশ না থাকায় ভোটার উপস্থিতি বেড়েছে। আকাশ মেঘলা, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে যারা আসতে পারেননি, দুপুরের পর থেকে তারা আসতে শুরু করেন।

কাদের বলেন, সিটি নির্বাচন নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন। সাংবাদিকদের মনে হয় মনে আছে, বিএনপিরও ভুলে যাওয়ার কথা নয়। ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনের পরপরই সাদেক হোসেন খোকা মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়, তখন তো কাউকে মনোনয়ন জমা দিতে দেওয়া হয়নি। এত বড় সিটি এখানে কিন্তু কেউই মনোনয়নপত্র দিতে পারেননি। এবার তো কোনো বাধা ছিল না। বিএনপি যদি চাইত, তারা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারতো।

ওবায়দুল কাদের বলেন, উপজেলা নির্বাচন একেবারেই পারফেক্ট হবে এটা আমি মনে করি না। নির্বাচন ব্যবস্থা পুরোপুরি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার আগে কিছু কিছু ভুল ত্রুটি ওভারকাম করতে হবে। আমরা ইলেকশন করতে করতে একটা সময় দেখা যাবে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ নিয়েছে। তখন এ ধরনের ত্রুটি বিচ্যুতি আসবে না।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সদস্য এস এম কামাল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ