• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জেমিনের মৃত্যুতে শোক প্রধানমন্ত্রীর মোবাইলে সরাসরি রেমিট্যান্স পাঠাতে পারবেন প্রবাসীরা ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী ভাঙ্গায় নারীর সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ভাবনা সেমিনার অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রে ৩ ফুটবলারকে গুলি করে হত্যা ভাঙ্গায় আরও ৪০টি ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ঘর বিতরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হলো বাংলাদেশ ভাঙ্গা মাদানী নগর কবর স্থান পরিচালনার নতুন কমিটি গঠন অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ মৃধা ভাঙ্গায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, পুলিশকে দুষছেন বিএনপির আমান

কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name / ৮৩০ Time View
Update : শনিবার, ১৬ মার্চ, ২০১৯

প্রতিবেদক :: সিদ্ধিরগঞ্জের কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু গণবভন থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আজ শনিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী এশিয়ান হাইওয়ের (বাইপাস) ভুলতা উড়াল সেতুর গাজীপুর-মদনপুর সড়কের একটি লেন ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতুর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

১ হাজার ৩০০ কোটি ব্যয়ে নির্মিত কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু। সেতুর দৈর্ঘ্য ৩শত ৯৭ দশমিক ৫মিটার এবং প্রস্থ ১৮ দশমিক ৩ মিটার। সেতুটি হয়েছে ৪ লেন বিশিষ্টি। পূর্বাঞ্চলীয় ১৮টি জেলার হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করছে। ১৯৭৮ সালে কাঁচপুর প্রথম সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল করছে।

২০১৬ সালে ৫ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় কাঁচপুর নির্মান কাজ শুরু করে। সেতুটির ৫ টি পিলার উপর নির্মিত নতুন এই সেতুটি স্টিলের গার্ডারের উপর কংক্রিটের ঢালায়ের মাধ্যমে তেরি হয়েছে। ১০০ বছরের স্থায়িত্ব কাল নির্ধারণ করে সেতুটির নির্মাণ কাজ করেছে জাপানী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওবায়শি করপোরেশন, শিমিজু করপোরেশন, জে এফ আই ও আই এইচ আই। সেতুর মোট ব্যয় ৭৫ ভাগ অর্থ জোগান দিযেছেন জাপানী উন্নয়ন সংস্থা (জাইকা) আর ২৫ ভাগ অর্থ জোগান দিয়ে বাংলাদেশ সরকার।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় ৩৫৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ৪ লেন বিশিষ্ট তৃতীয় তলা ভুলতা ফ্লাইওভার একটি মেগা প্রকল্প। এতে করে এখানকার যানজট অনেকাংশে কমে যাবে। কমবে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি। স্থানীয়রা জানান, এ উপজেলার ভুলতা এলাকায় রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তহম পাইকারি কাপড়ের বাজার ‘গাউছিয়া মার্কেট’।

এছাড়া ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও এশিয়ান হাইওয়ের সংযোগস্থল হওয়ায় এখানে যানজট ছিল নিত্যদিনের সঙ্গী। ভুলতা ফ্লাইওভারটির একপাশ উদ্বোধন শেষে খুলে দেয়া হলে যানজট নিরসন হবে বলে আশা করছেন স্থানীয়রা। এতে করে সারাদেশের এ উপজেলার সাথে সারাদেশের যাতায়াত ব্যবস্থার গতিশীলতা বাড়বে। ভুলতা ফ্লাইওভার উড়াল সেতু নির্মাণ হওয়ার কারণে এ এলাকায় জমির দামও বেড়ে গেছে কয়েকগুন।

পরিবহন শ্রমিকেরা জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা এলাকায় যানজট তাদের নিত্যদিনের সঙ্গী। এক ঘণ্টার পথ যেতে সময় লাগে ৩ ঘণ্টা।ভুলতা ফ্লাইওভারের কাঞ্চন-মদনপুর লেনের উদ্বোধন হলে যানজট অনেকাংশে যাবে বলে তিনি মনে করেন। এতে করে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তি পোহাতে হবে না। এ ফ্লাইওভারটি উদ্বোধন হলে বন্দর নগরী চট্টগ্রাম সহ দেশের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চল থেকে ঢাকা হয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ সহ উত্তর পশ্চিমাঞ্চল সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা তথা জনগণের যাতায়াত ও পন্য পরিবহন দ্রুত, সহজ ও নিরাপদ হবে।

জানা গেছে, ২০১৫ সালের অক্টোবরে ২৪০কোটি টাকা ব্যায়ে ৪ লেন বিশিষ্ট ভুলতা ফ্লাইওভার উড়াল সেতুটি নির্মাণে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সাক্ষর করেছিল সরকার। ‘ভুলতা ফ্লাইওভারটি রূপগঞ্জবাসীর জন্য একটি স্বপ্নের ফ্লাইওভার। আর এ ফ্লাইওভারটি চালুর অপেক্ষায় রয়েছে সকলে। চালুর পর যানজট মুক্ত থাকবে ভুলতা এলাকা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ