• বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

যমুনার পানি বিপৎসীমার ১৭ সেন্টিমিটার উপরে

Reporter Name / ৪৮ Time View
Update : শনিবার, ১৮ জুন, ২০২২

বগুড়া সংবাদদাতা :: বগুড়ায় যমুনা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে প্লাবিত হয়েছে নদী তীরবর্তী নিচু এলাকার বসতবাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং চরাঞ্চলের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের ফসলি জমি।

শনিবার সকাল ৯টায় যমুনার মথুরাপাড়া স্টেশনে পানি বৃদ্ধি পেয়ে ১৬ দশমিক ৮৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিলো।

এ পয়েন্টে যমুনা নদীর বিপৎসীমা ১৬ দশমিক ৭০ সেন্টিমিটার। গত ২৪ ঘণ্টায় (শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে শনিবার সকাল ৯টা) নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে ৪০ সেন্টিমিটার।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া পা‌নি উন্নয়ন বো‌র্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান।

বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি, সোনাতলা এবং ধুনট যমুনা নদী তীরবর্তী উপজেলা। তবে গাবতলী উপজেলা সারিয়াকান্দির সাথে লাগোয়া হওয়ায় এই উপজেলারও বেশ কিছু এলাকা বন্যায় আক্রান্ত হয়। প্রতি বছর বন্যায় বেশি আক্রান্ত হয় সারিয়কান্দি উপজেলা।

জানা গেছে, যমুনার পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় নদী তীরবর্তী নিচু এলাকার বসতবাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং চরাঞ্চলের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের ফসলি জমি প্লাবিত হয়েছে। সারিয়াকান্দি উপজেলার চালুয়াবাড়ী, কর্নিবাড়ী, বোহাইল, কাজলা, চন্দনবাইশা, সারিয়াকান্দি সদর, হাটরশরপুর, কুতুবপুর, ও কামালপুর ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল এবং এসব এলাকার রোপা, মাশকলাই, মরিচ, স্থানীয় জাতের গাঞ্জিয়া ধানসহ ফসলি জমিতে পানি প্রবেশ করেছে।

বগুড়া পা‌নি উন্নয়ন বো‌র্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান জানান, আরো ২/৩ দিন ২০-২৫ সেন্টিমিটার করে পানি বাড়তে পারে। আগামী ৭ দিন পর্যন্ত নদীর পানি বিপৎসীমার উপরেই থাকবে। এবার নদীর পানি বিপৎসীমার সর্বোচ্চ ৬০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হতে পারে। এতে করে নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চল এবং চরাঞ্চলগুলোই প্লাবিত হবে। পানি বাড়লেও বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে ভাঙনের কোনো আশঙ্কা নেই।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ