• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন

ভাঙ্গায় ৪০ ভরি স্বর্ণ ছিনতাইর অভিযোগে এএসআইসহ দুজন গ্রেপ্তার

Reporter Name / ২৪ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক :: এবার ফরিদপুরের ভাঙ্গা বাজারের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর নিকট হতে ৪০ ভরি সোনা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বুধবার (১৩ জুলাই) ভুক্তভোগী স্বর্ণ ব্যবসায়ী পাপ্পূ বিশ্বাস ভাঙ্গা থানায় কর্মরত এএসআই বাবুল ও তার সহযোগী মেহেদী হাসান মৃদুল মুন্সীকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলাটি রুজ্জ হওয়ার পর ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোলাম দস্তগীর আহমেদ অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য এএসআই বাবুল ও তার সহযোগী মেহেদী হাসান মৃদুলকে আটক করে। এ বিষয়টি সাংবাদিকদের সত্যতা নিশ্চিত করেন ভাঙ্গা থানার ওসি সেলিম রেজা।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানার কামঠানা গ্রামের পাপ্পু বিশ্বাসের যশোর সদর মার্কেটে (পিসি চন্দ্র জুয়েলার্স ) নামে একটি স্বর্ণের দোকান রয়েছে। তিনি গত ৯ জুলাই রাতে ভাঙ্গা বাজারের বনিক জুয়েলার্স এর পলাশ বনিক এর নিকট থেকে ১১টি বার বা ১১০ ভরি স্বর্ণ ক্রয় করেন।

ঘটনার রাতে অনুমানিক ১টার দিকে সোনার বারগুলো নিয়ে বাড়ি যাওয়া সময়ে তার পথ গতিরোধ করে ভাঙ্গা থানার এএসআই বাবুল ও তার সহযোগী মেহেদী হাসান মৃদুল। এ সময় পুলিশ পরিচয়ে ওই ব্যবসায়ীর কাছে থেকে সোনারগুলো অবৈধ বলে তারা ছিনিয়ে নেয়। এএসআই বাবুল হোসেন ও ব্যবসায়ীকে ৭টি বার ফেরত দিয়ে ৪টি বার দ্রুত ছিনিয়ে নেয় এবং ব্যবসায়ীকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এলাকা ছাড়ার হুমকি দেয়।

বিষয়টি নিয়ে ভাঙ্গা থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় মামলা হয়েছে। এএসআই বাবুল ও তার সহযোগী মেহেদী হাসানকে আটক করার পরে আদালত তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। পরবর্তীতে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্ত পুলিশের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, ছিনতাইকৃত ৪টি সোনার বার এএসআই বাবুল এর কাপুড়িয়া সদরদীর নিজ ভাড়া করা বাসা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। যার বর্তমান বাজার মূল্য ২৮ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ